1. sagor630@yahoo.com : admi2017 :
  2. yesnayon@gmail.com : Nayon Howladar : Nayon Howladar
  3. thedeshbangla@gmail.com : Desh Bangla : Desh Bangla
ফয়সালের কবর ভাঙার ঘটনা ‘অনিচ্ছাকৃত ভুল’ বলে দাবি করেছেন এমপি খোকা ও তার ভাগিনা
শিরোনাম :

ফয়সালের কবর ভাঙার ঘটনা ‘অনিচ্ছাকৃত ভুল’ বলে দাবি করেছেন এমপি খোকা ও তার ভাগিনা

নিজস্ব প্রতিনিধি
  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ১৮ ডিসেম্বর, ২০২০
  • ১৯৪ বার
ফয়সাল

নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি :  নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের কেন্দ্রীয় কবরস্থানে পুরোনো একটি কবর ভেঙে নিজের বোনের কবর দেওয়ার ঘটনায় বিবৃতি দিয়েছেন নারায়ণগঞ্জ-৩ আসনে জাতীয় পার্টির সাংসদ লিয়াকত হোসেন খোকা সহ তার ভাগিনা প্রয়াত বীর মুক্তিযোদ্ধার সন্তান ফয়সাল এর কবর ভাঙার ঘটনা ‘অনিচ্ছাকৃত ভুল’ দাবি করেন এই সাংসদ৷

লিয়াকত হোসেন খোকা বলেন, তার বড় বোন খালেদা খানম ডলি গত ১৭ নভেম্বর রাত সাড়ে ১১টায় ঢাকার আজগর আলী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন। করোনা পজেটিভ হওয়ায় রাতেই লাশ দাফনের পরামর্শ ছিল চিকিৎসকদের৷

দা দেশ বাংলা ফেসবুক পেজে সরাসরি যুক্ত হতে এখানে ক্লিক করুন

এমপি বলেন, ‘ওই রাতে আমার ভাগ্নে ফয়সাল মাসদাইর এলাকায় সিটি কর্পোরেশনের কেন্দ্রীয় কবরস্থানে গেলে দায়িত্বরতরা জানায় কর্তৃপক্ষের নিষেধাজ্ঞার কারণে রাতের বেলা দাফন কার্যক্রম বন্ধ। এ খবর পেয়ে আমি (এমপি) রাতেই কবরস্থানে গিয়ে রাতের মধ্যেই তার দাফন সম্পন্ন করা জরুরি বলে জানাই৷ প্রয়োজনে এ ব্যাপারে আমি মেয়রের সঙ্গে টেলিফোনে কথা বলবো বলেও জানাই।

কিন্তু তখন রাত আড়াইটা বেজে যাওয়ায় ওই সময় মেয়রকে টেলিফোন করা সমীচিন মনে করিনি। মানবিক দৃষ্টিকোন থেকে কবরস্থানের দায়িত্বপ্রাপ্তরা রাতেই দাফনের ব্যবস্থা করেন।’

পুরনো কবর ভাঙার প্রসঙ্গ টেনে তিনি বলেন, ‘কোথায় কবর দেওয়া হবে সেটি নির্বাচনের বিষয়ে কিছু দ্বিধাদ্বন্দ্ব ছিল। যে কবরে তাকে সমাহিত করা নিয়ে বির্তক দেখা দিয়েছে সেখানে অতীতে আমার মামা মরহুম মনসুর আহমেদকে সমাহিত করা হয়েছিল। কিন্তু আমার মরহুম বোন খালেদা খানম ডলির ইচ্ছা ছিল যে আমার বাবা মরহুম আইয়ূব আলীর কবরে যেন তাকে সমাহিত করি। আমার বোনকে যেখানে সমাহিত করা হয়েছে

আমার বাবার কবরটি সেই কবরটির ঠিক পেছনেই অবস্থিত। কিন্তু আমার বাবার কবরে আমার অপর এক বোনের শ্বশুরকে কবর দেওয়া হয় এবং পরে আমার বোনের শ্বশুর বাড়ির লোকজন কবরের জমিটি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে ক্রয় করে নেয়। আমার বোনকে

ওই কবরে সমাহিত করার ইচ্ছা প্রকাশ করে বোনের শ্বশুর বাড়ির লোকজনের সঙ্গে যোগাযোগ করলে তারা আপত্তি জানায়। পরে ওই কবরের সামনে থাকা কবর (প্রধানমন্ত্রীর আত্মীয় ডা. শেখ ইসরাইল হকেরও কবর) যেখানে আমার মামা মরহুম মনসুর আহমেদকে ইতিপূর্বে সমাহিত করা হয়েছিল সেখানে কবরস্থ করার জন্য আমার মামাতো ভাই শহিদুর রহমান প্রস্তাব করলে আমরা তা গ্রহণ করি। এরপরেই আমি কবরস্থান থেকে চলে আসি। পরবর্তীতে আমার ভাগ্নে ফয়সালসহ পরিবারের অন্যরা কবর খোঁড়ার ব্যবস্থা করে।’

সাংসদের ভাগ্নে ফয়সাল বলেন, ‘যে কবরে আমার মাকে সমাহিত করা হয় একই কবরে ডা. শেখ ইসরাইল হক নামে একজন মৃত ব্যক্তির সাইনবোর্ড ছিল। কিন্তু ওই কবরটি সিটি কর্পোরেশন থেকে ক্রয় করা এ বিষয়টি সাইনবোর্ডে উল্লেখ ছিল না বা আমাদেরও জানা ছিল না।

যে কারণে আমরা আমাদের আত্মীয়ের কবর মনে করেই একই কবরে আমার মাকে সমাহিত করি। কিন্তু পরে দেখা গেলো এ নিয়ে বিতর্ক দেখা দিয়েছে। বির্তক দেখা দেওয়ার পর এ বিষয়ে আমি এবং আমার মামা সংসদ সদস্য লিয়াকত হোসেন খোকা মরহুম ডা. শেখ ইসরাইল হকের পরিবারের সঙ্গে এ বিষয়ে কথা বলে তাদের কাছে দুঃখ প্রকাশ করি। মরহুমের পরিবারের সদস্যরাও বিষয়টি ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে নিয়ে আমাদের অনিচ্ছাকৃত ভুলকে ক্ষমা করে দেন। এ ব্যাপারে মরহুমের পরিবারের পক্ষ থেকে আর কোন অভিযোগ বা অনুযোগ নেই। তাই এ বিষয়টি নিয়ে আর কোন ভুল বোঝাবুঝি নেই বলেই আমরা মনে করি।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..
© All rights reserved © 2020 AmaderBarguna.Com