1. sagor630@yahoo.com : admi2017 :
  2. yesnayon@gmail.com : Nayon Howladar : Nayon Howladar
  3. thedeshbangla@gmail.com : Desh Bangla : Desh Bangla
কেমন ছিলো বাংলাদেশে করোনা শনাক্তের প্রথম দিন?

কেমন ছিলো বাংলাদেশে করোনা শনাক্তের প্রথম দিন?

বিশেষ প্রতিনিধি
  • আপডেট টাইম : সোমবার, ৮ মার্চ, ২০২১
  • ১৮৯ বার
গেলো বছরের মার্চের ৮ তারিখ ছিলো রোববার। চীনের উহানে করোনা ভাইরাস আগেই শনাক্ত হলেও আমাদের দেশে তখন কেবল গল্পের মধ্যেই ছিলো। সামাজিক মাধ্যমে বিভিন্ন রকম ভিডিও ছড়িয়ে পড়ায় করোনা নিয়ে দেখা যাচ্ছিলো একরকম চাপা উত্তেজনা। বিদেশফেরত যাত্রীদের তখন হাজিক্যাম্পে কোয়ারেন্টিনের ব্যবস্থা করা হয়েছে। আইইডিসিআরের পরিচালক মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা নিয়মিত মিডিয়াতে করোনার বিভিন্ন দিক নিয়ে খবরা-খবর দিয়ে যাচ্ছেন।
রোববারের সেই সকাল ১১টায় আমিসহ মিডিয়ার বড়ভাইয়েরা যথারীতি সেব্রিনা ফ্লোরার বক্তব্য শোনার জন্য মহাখালী কাঁচাবাজারের পাশে আইইডিসিআরের কনফারেন্স রুমে হাজির হলাম। কালাম চাচা এসে কফি দিয়ে গেলেন। কফির কাপে চুমুক দিয়ে এদিক-ওদিক সবার আলাপ শুনছি।
টানা বেশ কিছুদিন আইইডিসিআরে যাচ্ছিলাম করোনার খোঁজ-খবর আনতে। তবে এইদিনের আবহ একটু একটু ভিন্ন মনে হলো। অন্যদিন যেখানে সেব্রিনা ফ্লোরা সাথে মাত্র একজনকে নিয়ে এসে মিডিয়াকে ব্রিফ করেন। সে জায়গায় রোববারের দিন সাংবাদিকরা ছাড়াও রুমভর্তি আইইডিসিআরের বিভিন্ন পর্যায়ে কর্মকর্তাদের ভিড় দেখা গেলো। হঠাৎ করেই আবহাওয়া বদলে গেলো। সবার মধ্যে কেমন একটা চাপা উত্তেজনা।
স্বাভাবিকভাবেই শুরু করলেন সেব্রিনা ফ্লোরা। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তথ্য অনুযায়ী বিশ্বের বিভিন্ন দেশে করোনার কী হাল-হাকিকত সবকিছু একে একে বলতে লাগলেন। এরপরে আসলো বাংলাদেশ পর্ব।
সেব্রিনা ফ্লোরা বলা শুরু করলেন, ‘আমরা অন্য দিনগুলোতে আপনাদের যে কথাটি বলে এসেছি, আজকে আর সে কথা বলতে পারছি না। বাংলাদেশে তিনজনের দেহে করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এদের মধ্যে দুইজন পুরুষ ও একজন নারী। তারা সবাই আইসোলেশনে আছেন এবং সুস্থ আছেন। শনাক্ত হওয়া তিনজনই সম্প্রতি ইতালি থেকে বাংলাদেশে এসেছেন।’
বেশ কয়েকটি নিউজ চ্যানেল লাইভে ছিলো। সাথে সাথে দেশের সব কয়টি টেলিভিশনে ব্রেকিং নিউজ দেওয়া হলো, ‘দেশে প্রথমবারের মতো করোনা রোগী শনাক্ত। এদের দুইজন পুরুষ ও একজন নারী।’ আমিও রুটিন ওয়ার্ক অনুযায়ী অফিসে ব্রেকিংয়ের জন্য আপডেট পাঠিয়ে দিলাম।
এর পরের দিনগুলোতে আমরা সাংবাদিকরা সবাই বেশ সতর্ক হয়ে গেছিলাম। সবার ভেতরেই কেমন জানি একটা চাপা ভীতি দেখা যেতো। ওই দিনের পর থেকে মহাখালীর ওই ভবনে মানুষের আনাগোনা বেড়ে গিয়েছিলো।
তাজনুর ইসলাম
সাংবাদিক

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..
© All rights reserved © 2020 AmaderBarguna.Com